ঢাকায় সর্বোচ্চ, বরিশালে সবচেয়ে কম

আগের সংবাদ

সাভারে রোহানের হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবি

পরের সংবাদ

আশুলিয়ায় ব্রিজের মুখ বন্ধ করে কেমিকেল বর্জ্য ভরাট!

হাসান ভূঁইয়া

প্রকাশিত :১১:৪৮ অপরাহ্ণ, ০৭/০২/২১
আশুলিয়ায় একটি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার ব্রিজের মুখ আটকিয়ে কেমিকেল বর্জ্য ভরাট করে দোকান নিমার্ণ করছে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল। এতে করে ওই ব্রিজ দ্রুত সময়ে নষ্ট হয়ে যাওয়া সহ এলাকার মানুষের রোগবালাই বৃদ্ধি পাচ্ছে।

আশুলিয়া থানার ইয়ারপুর ইউনিয়নের তৈয়বপুর এলাকায় তৈয়বুপর ব্রিজের দক্ষিণ পাশে কেমিকেল বর্জ্য দিয়ে মুখ ভরাট করছে ওই এলাকার খলিল মাদবর নামের এক ব্যাক্তি। অভিযোগ আছে, খলিল মাদবর ওই জমির মালিক না হওয়া সত্তে¡ও, স্থানীয় কিছু লোকের সহযোগিতা তিনি এ কাজ করছেন।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ব্রিজটির দক্ষিন পাশের মুখ আটকিয়ে কেমিকেল বর্জ্য ভরাট করা হচ্ছে। এতে করে ব্রিজের উত্তর পাশের চকের পানি বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। এছাড়াও কেমিকেল বর্জ্য পানিতে পড়ায় এলাকার মানুষ বিষাক্ত পানির গন্ধে অসুস্থ হয়ে পড়ছে। ওই এলাকার একমাত্র পানি নিষ্কাশনে স্থলটি বন্ধ হলে পরিবেশ হুমকির মুখে পড়বে বলেও জানান অনেকে।

ব্রিজ সংলগ্ন বাড়ির বাসিন্দা হাজী হাশমত আলী বলেন, ব্রিজের মুখ ভরাট করে যে ময়লাটা উনারা ফেলছে, এটা খুবই দূষনীয়। এই পানিতে কেউ নামতে পারে না। এই ব্রিজ তো ২/৩ বছর পরে ড্যামেজ হয়ে যাবে। আর এই ব্রিজ যদি ভেঙ্গে পরে, তাহলে আবার এই এলাকার জনগনকে দূর্ভোগ পহাতে হবে। অনেক অনুরোধ করে আমরা এমপি সাহেবের নিকট হতে ব্রিজটা পেয়েছি।

এ ব্যাপারে খলিল মাদবরের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, জায়গায়টি তাদের। তাই কেমিকেল বর্জ্য দিয়ে তিনি ভরাট করছেন। তবে পানি নিষ্কাশনের জন্য একটু জায়গা রেখে মাটি ভরাট করবেন বলেও জানান তিনি।

ব্রিজ নষ্ট বা ড্যামেজ হওয়ার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যদি কেমিকেল বর্জ্যের কারণে ব্রিজের ক্ষতি হয়, তাহলে আমরা ওই দিকটা খালি রেখে ভরাট করবো। আপদত যা ভরা হয়েছে, তা আমরা সরিয়ে দিবো। হয়তো ভরাট করার সময় খেয়াল করেনি। পরবর্তীতে ওইদিকে আর ফেলবো না।