ভারত-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ সেন্টারের কেন্দ্রীয় সদস্য হলেন আশরাফ সিজেল

আগের সংবাদ

আশুলিয়ায় মহাসড়কে চাঁদা বিনিময়ে ঘোরে অবৈধ লেগুনার চাকা!

পরের সংবাদ

মে দিবসে আশুলিয়ার পথে পথে শ্রমিক সংগঠনের নানা কর্মসূচি

হাসান ভূঁইয়া

প্রকাশিত :৪:৪৫ অপরাহ্ণ, ০১/০৫/২৪

মহান মে দিবস বা আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবসে স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত আশুলিয়ার সড়ক-মহাসড়ক। দিবসটি পালনে শিল্পাঞ্চল আশুলিয়ার বিভিন্ন  শ্রমিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা তাদের ব্যানারে র‍্যালি, মানববন্ধন ও সমাবেশ পালন করেছেন।

বুধবার (১ মে) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত আশুলিয়ার নবীনগর-চন্দ্র ও বাইপাইল-আব্দুল্লাহপুর মহাসড়কসহ বিভিন্ন আঞ্চলিক সড়কে এ ধরণের মিছিল ও শোভাযাত্রা দেখা যায়।

সরেজমিনে দেখা যায়, সকালে ১১টার দিকে আশুলিয়ার বাইপাইল থেকে লাল পতাকা হাতে এক বিশাল র‍্যালি বের করে বাংলাদেশ বস্ত্র পোশাক শিল্প শ্রমিক লীগ ও বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্যলীগ। পরে র‌্যালিটি নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়ক হয়ে আশুলিয়া প্রেসক্লাবের সামনে এসে শেষ হয়। সেখানে তারা সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন। এছাড়াও বাইপাইল-আব্দুল্লাহপুর সড়কের আশুলিয়ার জামগড়া ও জিরাবোসহ বিভিন্ন সড়কে ২০টির বেশি শ্রমিক সংগঠন মে দিবস পালন করেন।

সমাবেশ থেকে শ্রমিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা সরকার ঘোষিত নতুন মজুরী বাস্তবায়ন করা, রেশনিং ব্যাবস্থা চালু করা, নারী শ্রমিকদের জন্য ৬ মাসের মাতৃত্বকালিন ছুঁটির আইন পাশ করা, নারী ও শিশুদের নিরাপত্তা শিক্ষা ব্যাবস্থা করা, শ্রম আদালতের মামলা ১৫৫ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করা, শ্রমিক ছাঁটাই ও শ্রমিকদের ওপর নানা নির্যাতন বন্ধ ও তাদের অধিকার আদায়ের জোর দাবি জানান।

বাংলাদেশ বস্ত্র ও পোশাক শিল্প শ্রমিক লীগের সহ-সভাপতি লায়ন ইমাম বলেন, ‘২০১২ সালে ২৪ নভেম্বর তাজরীন গার্মেন্টে আগুনের হতাহত শ্রমিক ও তাদের পরিবাররা আজও দ্বারে দ্বারে ঘুরছে ক্ষতিপূরণের জন্য। তারা বারবার আন্দোলন করছে, বারবার আশ্বাস দেয়ার পরও তাদের ক্ষতিপূরণ দেয়া হচ্ছে না। এই সমাবেশ থেকে আমরা তাদের ক্ষতিপূরণ নিশ্চিত করার আহ্বান জানাচ্ছি।’

বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্যলীগের সাধারণ সম্পাদক সরোয়ার হোসেন বলেন, আজ শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ের রক্তঝরা দিন। সারা বিশ্বের শ্রমজীবী মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় পালন করা হয় এ মে দিবস। মহান মে দিবস পৃথিবীর দেশে দেশে শ্রমিক শ্রেণির আন্তর্জাতিকভাবে সংহতি ও ঐক্যবদ্ধ থাকার অঙ্গীকার প্রকাশের দিন। মহান মে দিবস পৃথিবীর সব শ্রমজীবী মানুষের এক অমর প্রেরণার উৎস।

অন্যদিকে বিভিন্ন সংগঠন বিকেলে দিবসটি পালনের জন্য ইতিমধ্যে সকল ধরণের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে বলে জানা যায়।