সাভারে বাসচাপায় পথচারী নিহত

আগের সংবাদ

আশুলিয়ায় ধর্ষণের প্রতিবাদে ছাত্রলীগের আলোক প্রজ্জ্বলন

পরের সংবাদ

আশুলিয়ায় দুই বান্ধবীকে গণধর্ষণের ভিডিও ফাঁস,আটক ৪

ইস্কান্দার হোসাইন

প্রকাশিত :১২:৩৬ অপরাহ্ণ, ০৭/১০/২০
আশুলিয়ায় দুই বান্ধবীকে গণধর্ষণের অভিযোগ,আটক ৪

আশুলিয়ায় দুই বান্ধবীকে গণধর্ষণের অভিযোগে কিশোর গ্যাংয়ের  ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।ঘটনার প্রায় ৩৫ দিন পর ভিডিও ফাঁস  হওয়ার বিষয়টি নজরে আসলে কিশোর গ্যাংয়ের দলনেতাসহ তাদের আটক করা হয়।

বুধবার (৭ অক্টোবর) ভোর রাতে আশুলিয়ার ভাদাইল ও নয়ারহাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

গত ৩০শে আগস্ট আশুলিয়ার ভাদাইল পবনারটেক এলাকায় ছেলে বন্ধুসহ বেড়াতে যায় দুই কিশোরী। এসময় ১২ সদস্যের কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা দুই কিশোরীকে দলবেঁধে ধর্ষণ করে। এ ঘটনার ভিডিও ধারণ করে। সম্প্রতি কিশোর গ্যাংয়ে দুই পক্ষের দ্বন্দ্বে ভিডিওটি স্থানীয়ভাবে ফাঁস হলে বিষয়টি পুলিশের নজরে আসে।

আটককৃতরা হলো- সারুফ,জাকির, রাকিব ও ডায়মন আলামিন। তারা ভাদাইল এলাকায় বসবাস করে। দলনেতা সারুফকে খুলনা থেকে আটক করা হয়।
খবর নিয়ে জানা যায়, গত ৩০ আগষ্ট আশুলিয়ার ভাদাইলের পবনার টেক এলাকায় প্রতিবেশি দুই তরুণকে নিয়ে দুই কিশোরী বান্ধবী বেড়াতে যায়। পরে কিশোর গ্যাং সারুফের নেতৃত্বে ১০ থেকে ১২ জন কিশোরীদের সঙ্গে থাকা দুই তরুণকে বেদড়ক মারধর করে তাড়িয়ে দেয়। পরে দুই কিশোরীকে গণধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে। পরে বিষয়টি সারুফের বাবা আকরাম হোসেন টাকা বিনিময়ে চামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে। এদিকে তাদের হুমকিতে ভয়ে এক কিশোরি নিজ গ্রামে চলে যায়।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক জিয়াউল ইসলাম আরও জানান, ভুক্তভোগী এক কিশোরীকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে ও সেই হামলার শিকার দুই তরুণকে শনাক্ত করেছে। তবে এক কিশোরী না দুইজনই ধর্ষণের শিকা র হয়েছে বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে। তাদের সঙ্গে ও তাদের পরিবারের সঙ্গে আলোচনা করে আইন ব্যবস্থা নেয়ার পক্রিয়া চলছে। এ ঘটনা বাকীদের আটকের অভিযানও অব্যহত রয়েছে।