করোনা: মাস্ক-স্যানিটাইজার নিয়ে জনগণের পাশে আশুলিয়া থানা ছাত্রলীগ

Print Friendly, PDF & Email

হাসান ভূঁইয়া, নিজস্ব প্রতিবেদক:

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এ আক্রান্তের সংখ্যা দিনের পর দিন বাড়ছে, কোনো ধরনের প্রতিষেধক না থাকায় প্রতিদিন বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। সতর্কতা, সচেতনতা ও পরিষ্কার থাকায় আপাতত এ ভাইরাস প্রতিরোধের একমাত্র কৌশল। এদিকে গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হলেও এ দেশের জনগোষ্ঠীর বিশাল একটি অংশ এখনও অসচেতন রয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে হাতের মাধ্যমে এ ভাইরাস সংক্রামক হওয়ার কথা জানিয়ে নিয়মিত হ্যান্ড-স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করার জন্য বলা হচ্ছে। কিন্তু বাজারে এসব বস্তু চাহিদার বিপরীতে অপ্রতুল। যার কারণে ভোগান্তিতে পড়েছে অনেকে। দেশের সংকটকালে আশুলিয়া থানা ছাত্রলীগ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। করোনার মতো মহামারিতেও আশুলিয়া থানা ছাত্র লীগ প্রয়োজনীয় দ্রব্য ও সচেতনতামূলক প্রচারপত্র নিয়ে তাদের সাধ্যমতো এ ভাইরাস থেকে জনসাধারণকে সুরক্ষার জন্য কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বাজারে প্রথম সংকট দেখা দেয় হ্যান্ড-স্যানিটাইজারের। আশুলিয়া থানা ছাত্র লীগের নিজস্ব উদ্যোগে হ্যান্ড-স্যানিটাইজার তৈরি করে জনসাধারণের মাঝে বিতরণ করছেন। সেই সাথে মাস্কের সংকট দেখা দেওয়ায় নিজেদের তৈরী মাস্ক বিতরন করেন। এছাড়াও তারা হ্যান্ড গ্লোপও বিতরণ করেন সাধারণ মানুষের মাঝে।

মঙ্গলবার বিকেলে আশুলিয়ার নবীনগর এলাকার জয় রেস্তোরা ও জাতীয় স্মৃতিসৌধের সামনের এলাকায় আশুলিয়া থানা ছাত্র লীগের সভাপতি শামিউল আলম শামিম ও সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌস আহমেদ টিটু’র উপস্থিতিতে হ্যান্ড-স্যানিটাইজার, মাস্ক ও হ্যান্ড গ্লোপ বিতরণ করা হয়।

এ প্রসঙ্গে আশুলিয়া থানা ছাত্রলীগের সভাপতি শামিউল আলম শামিম আশুলিয়া এক্সপ্রেসকে বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে উদ্যোগ নেওয়ার জন্য আমরা সবাইকে  নির্দেশ দিয়েছি। আশুলিয়ার বেশ কয়েকটি স্থানে আমরা মাস্ক-স্যানিটাইজার বিতরণ করেছি। কিন্ত সেখানে জনসমাগম হওয়ায় আমরা সর্বোচ্চ সতর্কতার সঙ্গে সবাইকে সচেতন করার জন্য কাজ করতে বলেছি। আমাদের ঐক্যবদ্ধভাবে এ দুর্যোগ মোকাবিলা করতে হবে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here