আশুলিয়ায় ডিবি পরিচয়ে ৬ লাখ টাকা ছিনতাই

আগের সংবাদ

আশুলিয়ায় বন্ধ কারখানা খুলে দেওয়ার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

পরের সংবাদ

আশুলিয়ায় জাল নোট ও মেশিনসহ আটক ২

হাসান ভূঁইয়া

প্রকাশিত :৯:৫৩ অপরাহ্ণ, ১০/০১/২১

আশুলিয়ায় জাল টাকার ব্যবসায়ী চক্রে দুই সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১)। এ সময় তাদের নিকট হতে ১ লাখ ৪৪ হাজার ছয়শত টাকার জালনোট ও জাল টাকা তৈরীর সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়।

রবিবার (১০ জানুয়ারী) রাতে প্রেস রিলিজের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব। এর আগে একইদিন সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আশুলিয়ার দক্ষিণ ভাদাইল এলাকার জাহাঙ্গীরের বাড়ি থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটকরা হলো- মিজানুর রহমান (৩৯) ও রেজাউল ইসলাম (৩৬)।

র‌্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার সকালে আশুলিয়ার দক্ষিণ ভাদাইল এলাকা থেকে জাল টাকা তৈরী চক্রের দুই সদস্যকে আটক করা হয়। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ ওই বাড়িতে জাল টাকা তৈরী করে আসছিলো এসময় তাদের রুম থেকে ১ লাখ ৪৪ হাজার ছয়শত টাকার জালনোট, ৫টি মোবাইল ফোন, ১টি কিবোর্ড, ২টি টোনার, ১টি ল্যাপটপ, ১টি লেমিনেটিং মেশিন, ১টি প্রিন্টার, ১০টি স্ক্যানার বোর্ড, ২টি থাই বোর্ড, ৮৫০ গ্রাম টু পার্ট পেপার জাল ছাপ, ৩ বোয়ম সোনালী রং, ৫টি এন্টি কাটার, ১টি হিট লাইট, ৫টি হিট লাইট বাল্ব, ৫টি রাবার, ২টি এন্টি কাটার বেøড, ২টি ক্লাম, ৬টি স্কেল, ২টি ফয়েল পেপার, ১টি হাতুড়ী, ৩টি লিকুইড রং, ৩টি গাম, ২ কেজি পেইন্ট, ২ কৌটা হলুদ রং, ৫টি সেনসিটিজার, ২টি ব্যাগ, ৪টি থাইগøাস ও ২ কেজি টাকা বানানোর কাগজ উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব আরও জানায়, মিজানুর রহমান ইতিপূর্বে মাদক মামলায় পুলিশ কর্তৃক গ্রেফতার হয়ে কারাভোগ করেছে। কারাভোগ শেষে গত ৩ মাস আগে অধিক মুনাফার লোভে জাল টাকা তৈরি চক্রের সাথে জড়িয়ে পড়ে। গ্রেফতারকৃত অপর আসামী রেজাউল ইসলাম তার সহকর্মী হিসেবে কাজ করতো।

এ ব্যাপারে র‌্যাব-১ এর সহকারী পুলিশ সুপার মোর্শেদুল হাসান জানান, উদ্ধারকৃত জাল টাকা, সরঞ্জামাদি ও গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। অপরাধীদের ধরতে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।