সাভারে বাস চাপায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

আগের সংবাদ

সাভারে নারী শ্রমিককে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার ৪

পরের সংবাদ

শিল্প পুলিশের উপর ছাত্রলীগ নেতার হামলা

হাসান ভূঁইয়া

প্রকাশিত :৮:৪৫ অপরাহ্ণ, ০৮/০১/২১

আশুলিয়ায় বকেয়া বেতনসহ ফ্যাক্টরী খুলে দেওয়ার দাবিতে আন্দোলনরত শ্রমিক ও উপস্থিত শিল্প পুলিশ সদস্যকে মারধরের অভিযোগে থানা ছাত্রলীগ নেতা বাহার উদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (০৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিল্প পুলিশ-১ এর পুলিশ সুপার সানা সামিনুর রহমান।

এর আগে, একইদিন সকালে আশুলিয়া প্রেসক্লাবের সামনে শাহীন ফ্যাশন লিমিটেড নামের একটি কারখানার শ্রমিকরা আন্দোলন করতে থাকলে শ্রমিকদের উপর হামলা চালায় ওই ছাত্রলীগ নেতা ও তার বাহিনী। পরে পুলিশ তাদের বাধা দিলে এক পুলিশ সদস্যকে মারধর করে তারা।

আটক বাহার উদ্দিন আশুলিয়া থানা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক। আহত পুলিশ সদস্যের নাম আলমগীর।

শিল্প পুলিশ জানায়, আশুলিয়ার ডিইপিজেডের একটি কারখানার শ্রমিকরা তাদের দাবী আদায়ে জরো হতে চাইলে বাহার ও আলমাস মুন্সির নেতৃত্বে ছাত্রলীগের ১০/১২ জনের একটি বাহিণী শ্রমিকদের উপর হামলা চালায়। সেখানে শিল্প পুলিশ (ইন্টেলিজেন্স) কনস্টেবল আলমগীর উপস্থিত থাকায় আলমাস মুন্সি ও বাহার উদ্দিনসহ বেশ কয়েকজন তাকে বাস ও রড দিয়ে এলোপাথাড়ি ভাবে মারধর করে। পুলিশ পরিচয় দিয়েও রক্ষা পাননি তিনি। পরে সেখানে উপস্থিত বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা এগিয়ে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে এবং বাহারকে আটক করে।

শিল্প পুলিশ-১ এর পুলিশ সুপার সানা সামিনুর রহমান বলেন, ঘটনার পর বাহার উদ্দিনকে শিল্প পুলিশ-১ এর কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। এছাড়া আহত পুলিশ সদস্যকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় আশুলিয়া থানায় মামলা দায়েরর প্রস্তুতি চলছে।

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানা ছাত্রলীগের সভাপতি সামিউল আলম শামিম বলেন, আমার কমিটির অনুমোদন দিয়েছে জেলা কমিটি। তার সাথে আমার কোনো সম্পর্ক নাই। সে তদবিরের মাধ্যমে এই কমিটিতে জায়গা পেয়েছে। তাছাড়া কারো ব্যাক্তিগত অপকর্মের দায় আশুলিয়া থানা ছাত্রলীগ নিবে না বলেও জানান তিনি।

এ ব্যাপারে ঢাকা জেলা উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি সাইদুর এর সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলে, তিনি ব্যস্ত আছেন বলে ফোনটি কেটে দেন।

উল্লেখ্য যে, এরআগেও আশুলিয়ার পলাশবাড়ী এলাকা এক প্রবাসীকে আটক করে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠে তার বিরুদ্ধে। এছাড়া আশুলিয়ার পাথালিয়ার মুনুদিয়া এলাকায় এক নারী কেলেঙ্কারী জনিত কারনে স্থানীয়রা তাকে আটক করে গণধোলাই দেয়।