আশুলিয়ায় ৫ টাকার জন্য যাত্রীর লাথিতে রিকশা চালকের মৃত্যু

আগের সংবাদ

নিখোঁজ কলেজ শিক্ষকের খণ্ডিত মরদেহ উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৩

পরের সংবাদ

আশুলিয়ায় মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় কিশোরকে কুপিয়ে জখম

ইস্কান্দার হোসাইন

প্রকাশিত :১২:৫৬ অপরাহ্ণ, ০৩/০৮/২১

আশুলিয়ায় মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় জীম ইসলাম (১৬) নামের এক কিশোরকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) ভোরে আশুলিয়ার বাইপাইলের বসুন্ধরা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত জীম ইসলাম (১৬) আশুলিয়ার বসুন্ধরা এলাকায় ভাড়া থেকে আশুলিয়া ক্লাসিক পরিবহনের হেলপার হিসেবে কাজ করে বলে জানা যায়।

আশুলিয়ায় মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় জীম ইসলাম (১৬) নামের এক কিশোরকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) ভোরে আশুলিয়ার বাইপাইলের বসুন্ধরা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত জীম ইসলাম (১৬) আশুলিয়ার বসুন্ধরা এলাকায় ভাড়া থেকে আশুলিয়া ক্লাসিক পরিবহনের হেলপার হিসেবে কাজ করে বলে জানা যায়।

অভিযুক্তরা হলো- টিপু, টেক্কা মনির, সুজন ও বাবু।

হাসপাতালের বেডে শুয়ে কিশোর জীম জানায়, কি কারণে আমাকে এই অবস্থা করল জানি না। তবে আমি যে বাসে হেলপারি করি ওই বাসের চালক লিটন ভাইয়ের সাথে ওদের সাথে আগেই ঝামেলা ছিল। আমরা রাতে গাড়ি গ্যারেজ করে হেটে গাজীরচটে বাসায় যাচ্ছিলাম। এসময় আনিস, টেক্কা মিনির, টিপু, সুজন সহ আরো কয়েকজন আমাদের উপর হামলা করে। এসময় লিটন ভাই দৌড়ে পালিয়ে যায়। আমাকে ধরে ফেলে এবং আমার হাত পায়ের রগ কেটে দেয়। এসময় আমি চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়।

বাসের চালক লিটন জানায়, বেশ কিছুদিন আগে তিনি ও আরো কয়েকজন মিলে টিপু, টেক্কা মনির, রাব্বিকে মাদক বিক্রি করতে বাধা দিয়েছিলো। ওই সূত্র ধরেই গতকাল রাত ৩ টার দিকে বাস রেখে তিনি ও জীম বাসায় ফিরছিল। পথে রাম দাঁ, চাপাতিসহ দেশিয় অস্ত্র দিয়ে তাদের ধাওয়া করে টিপুবাহিনী। কিন্তু জিম দৌড়ে পালাতে গিয়ে পড়ে গেলে তার হাত ও পায়ের রগ কেটে দেয় তারা।

এসময় স্থানীরা জীমকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিক্যাল কলেজের হাসপাতালে ভর্তি করে। ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

এবিষয়ে আশুলিয়া থানার ওসি (তদন্ত) জিয়াউল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে এখনো কোন অভিযোগ পাইনি। তবে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।