আশুলিয়ায় নবজাতক ফেলে গেলেন এক মা, দত্তক নিতে চান শত মা!

Print Friendly, PDF & Email

হাসান ভূঁইয়া, নিজস্ব প্রতিবেদক:

ঢাকার অদূরে শিল্পাঞ্চল আশুলিয়ায় মির্জানগর এলাকায় গণস্বাস্থ্য সমাজ ভিত্তিক মেডিকেল কলেজ এর প্রাচীরের বাহির থেকে উদ্ধার করা হয় এক নবজাতক। ওই নবজাতক উদ্ধার হওয়ার সময় কিছুটা অসুস্থ্য থাকলেও এখন সুস্থ্য আছে। অন্যদিকে এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে শত-শত মা ফোন দিচ্ছে শিশুটিকে দত্তক নেওয়ার জন্য।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বৃহষ্পতিবার দুপুরে মেডিকেলের পরিচালক মোঃ আবু তাহের বলেন, শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মেডিকেল কলেজ এর প্রাচীরের বাহিরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পাশ থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে রেখে যান আসিফ নামের এক ইট-খুয়া ব্যবসায়ী। শিশুটিকে হাসপাতালের নিয়ে আসার পরে প্রথমে শিশু বিভাগে রাখা হলেও পরে তাকে গাইনী বিভাগে রাখা হয়। কারণ অনেক নবজাতকের মা গাইনী বিভাগে আছে, যদি তাদের কারো বুকের দুধ পান করানো যায়, তাহলে শিশুটির জন্য ভালো হবে।

এ সময় তিনি আরো বলেন, শিশুটি ব্যাপারে আশুলিয়া থানায় লিখিতভাবে অবগত করা হয়েছে। আমাকে ওসি সাহেব যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্য বলেছেন। আমাদের কাছে এই নবজাতক নেওয়ার জন্য অনেকে অনুরোধ করেছে। কি ধরণের পক্রিয়ার মাধ্যমে দিতে চান জানতে চাইলে, তিনি জানান কাকে পেলে বাচ্চাটা সুখি হবে, কার কাছে বাচ্চাটার ভবিষ্যৎ ভালো হবে তার কাছে দেওয়ার জন্য চেষ্টা করবো। বাচ্চাটি নিতে হলে সবাইকে আবেদন করতে হবে বলেও জানান তিনি।

উদ্ধারকারী আসিফ হোসেন জানান, আমি রাস্তার উপর পাশে ইট-বালু-খোয়ার ব্যবসা করি। ওই দিন সকালে আমি দোকানে ছিলাম, হঠাৎ এক পথচারী ওই জায়গায় দিয়ে যাওয়ার সময় শিশুটিকে দেখে আমাকে ডাক দেয়, পরে আমি আমার কর্মচারীকে ডেকে বলি, “দেখতো বাচ্চাটা বেচে আছে নাকি” সে দেখে বলে বাচ্চাটা হাত-পা নাড়ছে। পরে শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসি।

শিশুটির চিকিৎসক ডাঃ মোঃ মাহবুব জোবায়ের বলেন, শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে আসলে তার অবস্থা খুব একটা ভালো ছিলো না। এখন সে প্রায় পুরোপরি সুস্থ্য, শিশুদের সাধারণত জন্ডিসের সমস্যা থাকে, তারও আছে। তা হয়তো আগামী এক সাপ্তাহের মধ্যে ঠিক হয়ে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here