শরীরে ফোঁড়া? লক্ষণ ও চিকিৎসা

Print Friendly, PDF & Email

ফোঁড়া কি?

শরীরের কোন অংশে সংক্রমণের কারণে যদি একটি নির্দিষ্ট জায়গায় পুঁজ জমা হয়, তখন তকে ফোড়া বলে। ফোড়ার চারপাশের ত্বক গোলাপী বা লালচে বর্ণের হয়। ফোড়া খুবই ব্যথাদায়াক। শরীরের বিভিন্ন অংশে বিশেষ করে ত্বকের উপরিভাগে ফোড়া হয়। এছাড়া বগলে, কুচকিতে, যোনিপথের বাইরে ফোড়া হতে দেখা যায়। ফোড়া মাথার ত্বক, যকৃত, পাকস্থলী,  কিডনী, দাঁত এবং টনসিলেরও ফোড়া হতে পারে।

ফোঁড়া হওয়ার কারণ:

জীবাণু দ্বারা শরীরের কোন স্থানে সংক্রমণের মাধ্যমে প্রদাহ হয়ে ফোড়া সৃষ্টি হয়। এছাড়া সুচ অথবা সুচের মত যন্ত্র দিয়েও এর সংক্রমণ ঘটতে পারে। পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার অভাবেও ফোঁড়া হতে পারে।

ফোঁড়ার হওয়ার লক্ষণ:

      ফোড়া সাধারণত খুবই ব্যথাদায়ক হয়, লালচে রঙের পিন্ডের মত ঠেসে থাকে, স্পর্শ করলে গরম মনে হয় এবং অল্পতেই ব্যথা লাগে।

      ফোড়া হলে এর মাথা ফোঁটা আকারে দেখা দেয়। অনেক সময় এটা ব্রণের মত হয় এবং ফেটে যেতে পারে।

      সঠিকভাবে কাটা অথবা পরিষ্কার করতে না পারলে এর অবস্থা আরও খারাপ হয়। এমনকি এর সংক্রমণ ত্বকের ভিতরের কোষে এবং রক্ত প্রবাহে ছড়িয়ে যেতে পারে।

      ফোড়ার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়লে জ্বর, বমি বমি ভাব, বমি করা, ব্যথা এবং ত্বক লাল বর্ণ হওয়া ইত্যাদি বেড়ে যেতে পারে।

কিভাবে প্রতিরোধ করা যায়:

      সাধারণত পানি ব্যবহার করে নিজেকে সব সময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে

      দাড়ি কামানোর সময় যেন ত্বকের কোন অংশ কেটে না যায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে

      কোন ক্ষতের সৃষ্টি হলে দ্রুত ডাক্তরের সাথে যোগাযোগ করতে হবে

      ফোড়া কখনোই ফাটানো যাবে না নিজে নিজে। এর ফলে সংক্রমণ ছড়িয়ে যেতে পারে

      ফোড়ার মধ্যে সুচ অথবা ধারালো কিছু দিয়ে পুঁজ বের করা যাবে না

চিকিৎসা ।

ফোঁড়া ছোট বড় যেমনই হোক, তা কোনোভাবেই অবহেলা করা উচিত নয়৷ ভেতরের পুঁজ হয়ে থাকলে তা অবশ্যই বের করতে হবে।

• দেহের আক্রান্ত (ফোঁড়ার) অংশকে বিশ্রামে রাখতে হবে। যেমন- যদি হাতে হয় সে ক্ষেত্রে হাত নড়াচড়া না করে গজ দিয়ে গলার সাথে ঝুলিয়ে রাখতে হবে। রোগীকে বিশ্রামে থাকতে হবে।

• খুব বেশি ব্যথা থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ঔষধ খেতে হবে।

• ফোঁড়া কাটার পর নিয়মিত ড্রেসিং করাতে হবে।

• রোগীকে প্রচুর পুষ্টিকর খাবার (মাছ, মাংস, ডিম এমনকি টক জাতীয় ফল) খেতে দিতে হবে। এগুলো ক্ষতি করে না বরং তাড়াতাড়ি ভালো হতে সাহায্য করে।

• ফোঁড়ার অবস্থা বেশি খারাপ হলে দ্রুত ডাক্তারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে।

তথ্যসূত্রঃ ওয়েবসাইট

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here